ঢাকা মঙ্গলবার | ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

৫৫০ কোটি টাকা চাঁদাবাজির বিষয়টি ভিত্তিহীন

admin
অক্টোবর ৯, ২০২০ ৩:৫২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 
 
৫০ কোটি টাকা চাঁদাবাজির বিষয়টি ভিত্তিহীন

টকশোতে সরকার এবং সরকারি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নামে অপপ্রচার ও ভিত্তিহীন বক্তব্য প্রদান করার প্রতিবাদ জানিয়েছে লুকাস ব্যাটারি কর্তৃপক্ষ।

 

আজ (৮ অক্টোবর) দুপুরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এবং পরবর্তীতে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রেরণের মাধ্যমে এ প্রতিবাদ জানান লুকাস ব্যাটারির মানব সম্পদ, প্রশাসন এবং রেগুলেটরী অফিসার ও জেনারেল ম্যানেজার মেজর একেএম নিয়ামুল হক (অবঃ)।

 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২ই অক্টোবর ২০২০ ইং তারিখে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি টকশোর ভিডিও আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। টকশোতে ড. কনক সারোয়ার, মেজর দেলোয়ার হোসেন (অবঃ) এবং  ইলিয়াস হোসেন’কে উপস্থিত দেখা ‍যায়। মেজর দেলোয়ার হোসেন (অবঃ) এখানে তার বক্তব্যে বলেন যে, লুকাস ব্যাটারীর নিকট ৫৫০ কোটি টাকা চাঁদাবাজি করার চেষ্টা করা হয়েছে।

 

সকলের অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, মেজর দেলোয়ার হোসেন (অবঃ) লুকাস ব্যাটারীর নিকট ৫৫০ কোটি টাকা চাঁদাবাজি করার চেষ্টা করছে মর্মে যে দাবি করেছে, তা সম্পূর্ণরূপে মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

 

প্রকৃত পক্ষে আমাদের নিকট কেউ কোন প্রকার চাঁদা দাবি করে নাই। এরূপ বক্তব্যের কারণে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাসহ আমাদের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে, যাহা খুবই অনাকাঙ্ক্ষিত।

 

এরূপ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত অনলাইন সংবাদ ও ইউটিউবে প্রচারিত বক্তব্য বন্ধের পাশাপাশি ভবিষ্যতে এই ধরনের অপপ্রচার রোধ করার জন্য প্রচারকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যও সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের নিকট বিনীত অনুরোধ করছি। এরূপ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত সংবাদ/বক্তব্য  এড়িয়ে চলার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।

 

উল্লেখ্য, প্রবাসে পলাতক কনক সরওয়ার এবং ইলিয়াস হোসেন ফেসবুক ,ইউটিউবসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় সরকার ,বাংলাদেশ এবং সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়ে বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্র মূলক ভিত্তিহীন ও বানোয়াট প্রচারণা করে আসছে । এরই ধারাবাহিকতায় কনক সরওয়ার আয়োজিত একটি ফেসবুক টকশোতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর দেলোয়ার  হোসেন উল্লেখ করেন ,লুকাস ব্যাটারির নিকট পাঁচ শত পঞ্চাশ কোটি টাকা চাঁদা দাবি করা হয়েছে। ওই টকশোতে পলাতক ইলিয়াস হোসেন অংশ নেন।